yoga for body and mind.

Yoga For Body And Mind

যোগাভ্যাসে আসে সুস্থতা, তাতে আসে মনে প্রশান্তিঃ
https://youtu.be/ZXYYiJzEVAE[/wpdevart_youtube]locale=”en_US”]
ব্যায়াম করা শরীরটা একটু ঘমিয়ে নেওয়া যতই অপছন্দের হোক না কেন সুস্থ থাকতে আর কোন বিকল্প নেই। জিম করা, যেটার ব্যয় বহন করা আমাদের সবার পক্ষে সম্ভবপর নয়। একটা কথা আমাদের মনে রাখা উচিত ইয়গা আসন একধরনের বিজ্ঞান, যা আমাদের মানসিক ও শারিরীক সুস্থতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।ইয়গা আসন যা অল্পেতেই ভাল থাকার মন্ত্র। ওয়ার্কআউট যদি একান্তই ভাল না লাগে সেক্ষেত্রে যোগাসন তো আছেই। আজকাল জিম করতে গেলেও একটা ঘর জিমের জিনিস দিয়ে ভর্তি হয়ে যায়। তাছাড়া শূন্য বাজেটে যদি আপনি ফিট থাকতে পারেন তবে কেন শুধু শুধু জিমে যেতে যাবেন। ওজন কমানো, শক্তিশালী নমনীয় শরীর, উজ্বল ত্বক, শান্ত মন, ভালো স্বাস্থ্য ইত্যাদি যা কিছু আমরা পেতে চাই ঔষধ আছে যোগাসনে। এতে অনেক রকম শারীরিক সমস্যা যথা উচ্চরক্তচাপ, ডায়াবেটিস, করোনারী আর্টারি ব্লকেজ ইত্যাদি রোগ থেকে অনেককাংশে মুক্তি পাওয়া সম্ভব এবং শারীরিক, মান্সিক ও সুস্থ জীবন কাটানো সম্ভব।
এখানে যোগাসন শুধুই যোগাসন নয়।যোগ হোল এক অতিব গুরুতবপুর্ণ বিষয়। যোগ হোল এক জীবনদর্শন, আত্মানুশাসন, জীবন পদ্ধতি, যোগ হোল ব্যাধিমুক্ত এবং সমাধিযুক্ত জীবনের সংকল্পনা। যোগ শুধু চিকিৎসা পদ্ধতি নয়, বরং জগের প্রয়োগ ব্যাধিকে নিমূল করে। এটা এক প্রকার অতি প্রাচীনতম বিজ্ঞান যা শুধু শরীরের নয়, সমস্ত রোগেরও চিকিৎসা করে, এটা এক প্রকার প্রাচীন চিকিৎসা পদ্ধতি বা শাস্ত্র বলা চলে।
যোগ অ্যালোপ্যথির মতো কোন লাক্ষণিক চিকিৎসা নয়, বরং রোগের মূল কারণকে নিমুল করে আমাদের ভিতর থেকে সুস্থ করে তোলার এক উপায়। যেমন ধরুন আজকাল ডাক্তার দেখাতে গেলে প্রচুর পরিমান টাকা চলে যায়। ডাক্তারের ফ্রি আর মেডিসিনের পেছনে বিপুল প্রিমান টাকা ব্যয় হয়ে থাকে।তারপ্র তো আছেই নানা রকমের টেস্ট আর পরীক্ষানিরীক্ষা ।এভাবে ঔষধ খেতে খেতে প্রতি বছর অনেক লোক মারা যায়।আমাদের দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা খুব ব্যয় বহুল, তাছাড়া হাতে গোনা কয়েকটা সৎ ও ভাল ডাক্তার রয়েছে দেশে। উন্নত চিকিৎসার জন্য পার্শ্ববর্তি দেশ ভারতে যেতে হয়, যেটার ব্যয় ভার বহন করা সবাপ পক্ষে সম্ভবপর হয় না। তাই নিজাকে যদি নিরোগ ও আর্থিক ভাবে সচ্ছলতা পেতে চাইলে সময়ের অপচয় না করে শুরু করে দিন ইয়গাসন।

নিয়মিত যোগভ্যাসের অসংখ্য উপকারিতার মধ্যে কয়েকটি –
ফিটনেসঃ
শারীরিকভাবে সুস্থ মানেই কিন্তু পুরোপুরি ফিট থাকা নয়। তখনি পুরোপুরি ফিট মানসিক, আধ্যত্মিক, শারীরিক ও সামাজিকভাবে সুস্থ থাকবেন। আপনার আবেগ থাকবে আপনার নিয়ন্ত্রণে। কথায় বলে, রোগের অনুপস্থিতি কিন্তু স্বাস্থ্য নয়, স্বাস্থ্য হোল জীবনের বহুমুখী বহিঃপ্রকাশ।আপনি কতটা আনন্দ এবং উৎসাহের সঙ্গে জীবঙ্কে উপভোগ করতে পারছেন সেটাই কিন্তু আপনার স্বাস্থের প্রমান। আর এরই সাথে যোগাসন আপনাকে দেয় পরিপূণ স্বাস্থ্য। আপানাকে এটা ফিট রাখে শারীরিক, মানসিক, আধ্যাত্মিক সবভাবেই।

স্ট্রেস কমায়ঃ
সারা দিন কাজের চাপ আমাদের সবাই থাকে, আর এতে কম বেশি আমরা সকলেই কাহিল হয়ে পড়ি। ১২ ঘণ্ট পর আমাদের শরীর খুব ক্লান্তি লাগে। আবার কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পর ও ক্লান্ত লাগে। অনেক সময় মেজাজ খারাপ থাকে। আর কারণ স্ট্রেস। শারীরিক ও মানসিক দুভাবেই আবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ি। যোগাস্ন এর থকে মুক্তি দেয়।যোগাসন, প্রাণায়াম এবং ধ্যান করে স্ট্রেসকে দূরে রেখে প্রাণোচ্ছল জীবনযাপন করা সম্ভব।
মানসিক শান্তিঃ
মানসিক শান্তি কে না চাইয়? মন ভাল তো সব কাজ করতে ভাল লাগে। দেহ ও মন ভাল না থাকলে কোন কাজ করতে ভাল লাগে না।তাই আমরা যদি চাই দেহের শান্তি ও মনের আনন্দ তাহলে যোগাসন, প্রাণায়াম এবং ধ্যান করা আবশ্যক।মানসিক শান্তি পাবার জন্য আমাদের কতই না প্রচেস্টা। ভাল থাকার জন্য আমরা কত কিছুই না করি।
আমরা সুন্দর জায়গায় ঘুরতে যাই, ভাল গান শুনি,প্রাকৃতিক সৌন্দযের মধ্যে কাটাতে চাই তবে নিয়মিত মানসিক শান্তি এত কিছু করার দরকার নেই। সুখ আছে নিজের মধ্যে,আর বাহিরে আছে দুঃখ, কষ্ট। সুখ খুজুন নিজের মাঝে, তার জন্য বাহিরে বা কারো কাছে যাবার প্রয়োজন নাই। যোগাসন, প্রাণায়াম করে নিজেকে চিনুন, নিজেকে জানুন আর নিজের দৃষ্টি, চেতনায় আমূল পরিবর্তন আসবে।

প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়ঃ
নিয়মিত যোগাভ্যাস আমাদের শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। চারিদিকের দূষণ নানারকম জীবাণু আমাদের শরীরে প্রবেশ করছে এবং ক্ষতি করার চেস্টা করছে।

এনার্জি বাড়ায়ঃ
দিন শেষে আমারা ক্লান্ত হয়ে পড়ি। বাড়ি ফেরার পর এনার্জি আবশিষ্ট থাকে না। মাত্র কয়েক মিনিটের যোগাভ্যাস কিন্তু সারা দিনের পরও আপনাকে আনারজির জোগান দেবে।
ঘুম্থেকে উঠে কিছুক্ষণ যোগাস্ন করলে কাজের ফাঁকেও ফ্রেশ আর এনারজেটিক থাকা যাবে। তাই যোগ আভ্যাসে আরও সচেতনতা বাড়াতে হবে।যোগাসন, প্রাণায়াম, মেডিটেশন ও ধ্যান ইত্যাদি ঘরে ঘরে গিয়ে প্রচার ও প্রসার বাড়াতে হবে।
আমদের এ ওয়েব সাইটের একটায় লক্ষ্য যে, বাংলাদেশের প্রতিটি ঘরে ঘরে যোগাসনের প্রচার ও প্রসার হবে। আমাদের জাতি হবে রোগ মুক্ত জাতি। এতে আত্মনির্ভরশীলতা বাড়বে। আমাদের কথায় কথায় ডাক্তার, ঔষধ এসবের হাত থেকে রক্ষা করবে ইয়গা।তাই আমাদের এটায় লক্ষ্য আর এ লক্ষ্যে তৈরী আমদের সাইট http://yogasanjita.com

The following two tabs change content below.
আসুন সবাই মিলে ইয়গা-মেডিটেশন করি,মন থেকে অশুভ সব মুছে ফেলে এ সুন্দর পৃথিবীটাকে ভালবাসাই আরও সুন্দর করে তুলি
About ইয়গা সঞ্জিতা(Yoga Sanjita)

আসুন সবাই মিলে ইয়গা-মেডিটেশন করি,মন থেকে অশুভ সব মুছে ফেলে এ সুন্দর পৃথিবীটাকে ভালবাসাই আরও সুন্দর করে তুলি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

* Copy This Password *

* Type Or Paste Password Here *

180 Spam Comments Blocked so far by Spam Free Wordpress